শীতবৃষ্টি
– সুজন দেবনাথ (অব্যয় অনিন্দ্য)

সন্ধ্যা হতে কাঁদছে আকাশ, রিনরিন
স্মৃতিগুলি ভিজছে, তোমাকে নিয়ে
ইউরোপ বড়োই ম্লেচ্ছ, ঋতুজ্ঞানহীন
এখানে শীত আসে ছাতা মাথায় দিয়ে

শীতবৃষ্টি –
বাড়ি ফিরছি শেষ বিজন ট্রেনে
শেষ কামরা, দূরের এক কোনে
দুটি কিশোর-কিশোরী। ভিজছে ভালোবাসা
ঠাণ্ডা আলোয় ঠোঁট-সেতু, উঠেছে ধোঁয়াশা
ওদের জন্যই শীতের বৃষ্টি, জলও নীরব প্রেমী
ঠোঁট-আগুনে প্রেম-যজ্ঞ, জ্বলছি নাকি আমি?

শীতবৃষ্টি, শীতবৃষ্টি – পাহাড়ে কাঁপা-কাঁপি
শুন্য ঘরে, একলা বসে হিটারের জ্বর মাপি
ব্যালকনিতে দুইটি পাখি, খেলছে জল-চুম
একলা রাত, মিস করছি তোমার গায়ের ওম

তুমি রয়েছ বাংলাদেশে, পুড়ছ নিজের তাপে
শুনতে কি পাও, বৃষ্টি হয়ে ঝরছো ইউরোপে?

***

2020-03-10T21:01:40+06:00 March 10th, 2020|Categories: কবিতা|0 Comments

Leave A Comment