পথের আধুলি

//পথের আধুলি

পথের আধুলি

ক’দিন ধরে নেদারল্যান্ডসের হেগ শহরে আছি।  ডাচরা গর্ব করে হেগ শহরকে বলে ‘লিগ্যাল ক্যাপিটাল অফ দ্যা ওয়ার্ল্ড’ – পৃথিবীর আইনী রাজধানী। তা ঠিকই আছে। জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আদালত, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত সবই এখানে। কিন্তু হলে কী হবে – একেবারেই নিরামিষ শহর এই হেগ। ইউরোপ সম্বন্ধে কত লাল-নীল গল্প শুনে এসেছি। তার সাথে একেবারেই যায় না। শান্ত, ছিমছাম। কোথাও আমিষ নাই।
.
অবশেষে একদিন পৌঁছলাম নেদারল্যান্ডসের রাজধানী আমস্টারডাম। ছোট ছোট খাল ঘিরে রেখেছে শহরটাকে। সেই খালে সুদৃশ্য জলযান। তাতে চাকাওয়ালা ওয়াটার বাসও আছে। এসব জিনিস সহজেই ভেনিসকে মনে করিয়ে দেয়। এজন্যই শহরটাকে উত্তরের ভেনিস (ভেনিস অফ দ্যা নর্থ) বলে। এখানে আসতেই ইউরোপের আমিষ আমিষ গন্ধ পাওয়া শুরু হল।

Amsterdam এর ছেলেদের টি-শার্টে লিখা – I am*dam, আসলেই লম্বা লম্বা ডেম-স্টার পোলাপাইন সব। আমি সেখানে লিলিপুট। ডাচরা পৃথবীর সবচেয়ে লম্বা জাতি।
পাশেই টি-শার্ট পরা একদল মেয়ে। চোখ আটকে গেল তাঁদের টি-সার্টে। আমি চোখ সরাতেই পারছিলাম না।
ছিঃ অমন ভাবছেন কেন? এসব বিষয়ে আমি স্বামী বিবেকানন্দের শিষ্য। তবে এসময় মনে হয় বিবেকানন্দর চোখও আটকে যেত ওই অরেঞ্জ টি-সার্টগুলোতে। সব কটা মেয়ের টি-শার্টে লিখা – ‘Good girls go to heaven, bad girls go to Amsterdam.’

হুম, অপ্সরারা এভাবেই মুনিঋষিদের ধ্যান ভাঙত। এই তাহলে সেই ইউরোপ। সেই লাল-নীলের শহর। সাথে ভয়ও শুরু হল। সময় এসে গেছে প্রমাণ করার – সুজন, তুমি কি শুধু সুযোগের অভাবেই চরিত্রবান?
এখানে থেকে সরতে না পারলে কপালে দুর্গতি আছে। দুর্গতি এড়াতে দুর্গতিনাশিনী দুর্গা দুর্গা বলে হাঁটা শুরু করলাম ভ্যান গগ মিউজিয়ামের দিকে। আজ না হয় গগের আঁকা হাফ-নুড চিত্রই দেখি। ছবিই ভালো, ছবির জ্যান্ত মডেলদের আমার সহ্য হবে না! এ যাত্রা মহামতি গগই রক্ষা করুক। তাই তাড়াহুড়ো করে হাঁটা শুরু করলাম ভ্যান গগ মিউজিয়ামের দিকে।

2018-11-05T15:58:36+06:00 July 19th, 2018|Categories: ভ্রমণ|Comments Off on পথের আধুলি